প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মানছে না কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের ডিজি
আজকের কণ্ঠঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : 01730951049, 8802 58316319, 8802 5831 6320
৩১ অক্টোবর, ২০২০ ০৬:৫১ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    


  


প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মানছে না কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের ডিজি

Sabuj ১৪-০৫-২০১৮ ০৪:৪৫ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ
সিনিয়র রিপোর্টার :

কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাসের বিরুদ্ধে প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশনা অমান্য করাসহ অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে লিখিত অভিযোগ এসেছে। অভিযোগে বলা হচ্ছে, তিনি একই সাথে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগে, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পদে গত তিন বছর ধরে দায়িত্বে আছেন। এই সময়ে তিনি গুরুত্ব পূর্ণ দুটি পদের অপব্যবহার করছেন।

অভিযোগে বলা হচ্ছে, সংযুক্তি বাতিলের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নির্দেশনা আসলেও মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস তা না মেনে নারায়ণগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষক শিশির কুমার ধরসহ বেস কয়েকজনকে সংযুক্তির মাধ্যমে অধিদপ্তরে নিয়োজিত রেখেছেন। এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান সব ধরণের সংযুক্তি বাতিলের জন্য চিঠি দিলেও অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কোন পদক্ষেপ নেননি।

মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাসের বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হচ্ছে, তিনি অধিদপ্তরে ও মন্ত্রণালয়ে সময়য় না দিয়ে শুধু বিদেশ ভ্রমণে বেস্ত থাকেন। যার কারণে ২০১৬ সালে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে গুলতে ডিপ্লমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স চালু করলেও এখন পর্যন্ত দৃশ্যত কোন অগ্রগতি নেই। সেই সাথে এই সময়ে কলেজগুলোতে কোন অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়নি বলেও অভিযোগ এসেছে।

জানা যায়, মহাপরিচালক দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তাদের লোক দেখানো শাস্তি দিলেও পরবর্তীতে তাদের পুরস্কৃত করেছেন। শরিয়তপুরের টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের চীফ ইন্সট্রাকটর (ফিস কালচার) বিপ্লব বিকাশ পাল ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন কালে গুরুতর অনিয়মের কারণে শাস্তিমূলক বদলী করা হয়। এর কিছুদিন পরে বিপ্লব বিকাশ পালকে অধিদপ্তরের সহকারী মহাপরিচালক করেন মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস। কারন হিসেবে জানা যায়, বিপ্লব বিকাশ মহাপরিচালকের একান্ত অনুগত। একই ঘটনা ঘটে অধিদপ্তরের সহকারী মহাপরিচালক মোঃ জহুরুল ইসলামের ক্ষেত্রে।

জানা যায়, মোঃ জহুরুল ইসলামের দুর্নীতি হাতেনাতে ধরা পরায় বদলী করা হয় শেরপুর টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে। কয়েক মাসের মধ্যে তাকে আবার অধিদপ্তরে আনা হয়। এবার তাকে এমপিও সেকশনে দায়িত্ব দেওয়া হয়। অধিদপ্তরে মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাসের নিজস্ব বলয় তৈরি করে আধিপত্য বজায়ে রাখছেন।

এসব বিষয়ে কথা বলতে গেলে মহাপরিচালক অশোক কুমার বিশ্বাস কিছু অভিযোগ শিকার করলেও চরম অউধত্তের সাথে বলেন, আমার অনেক অর্জন আছে। সেসব কথা কেউ বলে না। এই অধিদপ্তর আগের চেয়ে অনেক গতিশীল হয়েছে। দুর্নীতি কমেছে। কর্মপরিধি বেড়েছে। 
            
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আসা সংযুক্তির নির্দেশনা মানা হচ্ছে না কেন এমন প্রশ্নে অশোক কুমার বিশ্বাস বলেন, লোকবলের সঙ্কটের কথা বারবার ঊর্ধ্বতন করতিপক্ষকে জানিয়েছি। বলেছি, কর্মপরিধি বেড়েছে বহু গুন। অধিদপ্তরে কম্পক্ষে ৩৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রয়োজন। কিন্তু সেটা দেওয়া হচ্ছে না। এই অবস্থায় কাজ চালিয়ে নেওয়ার জন্য আমার হাতে বিক্লপ কিছু না থাকায় এই অবস্থা। আজ লোকবল বাড়ালে কালকেই সংযুক্তিতে নেওয়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

দুর্নীতিগ্রস্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ বেববস্থা নেওয়া হচ্ছে না বিষয়ে তিনি বলেন, এই অভিযোগ ঠিক নয়। আমি এমন কোন কাজ করতে পারি না, যেটা আইনে নেই। যাদের দুর্নীতিগ্রস্ত বলা হচ্ছে, তাদের পরবর্তীতে পরমাণ করা যায়নি। এ ক্ষেত্রে কি করতে পারি। অধিদপ্তরের সহকারী মহাপরিচালক মোঃ জহুরুল ইসলামের দুর্নীতি হাতেনাতে ধরা পরার বিষয়ে তিনি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, আমি সার্বিক স্বার্থে কাজ করে থাকি।

জাহাঙ্গীনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, আসলে একই বেক্তি যখন দীর্ঘ দিন ক্ষমতায় থাকে তখন তিনি স্বেচ্ছাচারী হয়ে ওঠেন। কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের ক্ষেত্রে এটাই হয়েছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে সরকারে যে লক্ষ্য আগামী ২০২০ সালের মধ্যে কারিগরি শিক্ষার হার ২০ শতাংশ রূপান্তরিত করা সেটি অর্জন নিয়ে সংশয় দেখা দেবে।
 
১৪-০৫-২০১৮ ০৪:৪৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে


পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

আজকের কণ্ঠঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

অন্যান্য খবরসমুহ
: আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে আজকের কণ্ঠঃ
আজকের কণ্ঠঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

ভিজিটর সংখ্যা
100
৩১ অক্টোবর, ২০২০ ০৬:৫১ অপরাহ্ন