‘নাম্বার ওয়ান’ হতে চায় অগ্রণী ব্যাংক : ব্যবস্থাপনা পরিচালক
আজকের কণ্ঠঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : 01730951049, 8802 58316319, 8802 5831 6320
৩১ অক্টোবর, ২০২০ ০৭:৩৪ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    


  


‘নাম্বার ওয়ান’ হতে চায় অগ্রণী ব্যাংক : ব্যবস্থাপনা পরিচালক

নিউজ ডেস্কঃ ২৯-০৮-২০১৮ ১২:১৮ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ

স্টাফ রিপোর্টার :

 

দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে অগ্রণী ব্যাংক ‘নাম্বার ওয়ান’ হতে চায় বলে জানিয়েছেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও বিশিষ্ট ব্যাংকার মোহাম্মদ সামস্-উল ইসলাম। জনপ্রিয় এক দৈনিক পত্রিকাকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এ কথা বলেন তিনি।

 

তিনি বলেছেন, ‘অগ্রণী ব্যাংক রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে ‘নাম্বার ওয়ান হতে চায়’। এবং এটি আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য। সবার শীর্ষে যেতে হলে আমাদের কঠিন সংগ্রম করতে হবে। অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ সে চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত’।

 

ব্যাংকটির বর্তমান টার্গেটের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে আমাদের স্বল্পমেয়াদি টার্গেট হলো, লো কস্ট ডিপোজিট বাড়ানো। সেরা হওয়ার জন্য আমরা কিছু রণকৌশল প্রণয়ন করেছি। আগে সরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তারা গ্রাহকদের কাছে যেত না, বরং গ্রাহকরা ব্যাংকারের কাছে আসতো। কিন্তু যুগ পাল্টেছে। সত্যিকারের ব্যাংকিং সেবা আমরা গ্রাহকদের হৃদয় জয় করতে চাই। ’

 

বিপর্যস্ত পরিস্থিতি থেকে বের হয়ে আসা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট আমি অগ্রণী ব্যাংকের এমডি পদে দায়িত্ব নেই। সে হিসেবে ওই বছরের মধ্যেই ব্যাংকটিকে দাঁড় করানোর জন্য খুব বেশি সময় ছিল না। এ জন্য এমডির চেয়ারে বসেই আমি ১০০ দিনের একটি কর্মসূচি গ্রহণ করেছিলাম। পরিকল্পনাটি আমি পরিচালনা পর্ষদে উপস্থাপন করলে, পর্ষদ অনুমোদন দেয়। এরপরই সবাইকে সঙ্গে নিয়ে আমি কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করি। আমার বক্তব্য ছিল, ১০০ দিনে আমরা সব  কাজ করে ফেলতে পারব না। কোন কোন প্রদক্ষেপ গ্রহণ করলে ব্যাংক বিপর্যস্ত পরিস্থিতি থেকে ঘুরে দাঁড়াবে সেগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে চিহ্নিত করি। এবং ব্যাংকের সকল কর্মকর্তাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অগ্রণী ব্যাংক ১০০ দিনের মধ্যে অনেকাংশেই ঘুরে দাঁড়িয়েছিল।’

 

বঙ্গবন্ধু কর্নারের সর্বপ্রথম ধারনাও আসে অগ্রণী ব্যাংকের এই এমডি কাছ থেকে। তিনি ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয়ের সপ্তম তলায় বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপন করেন। যে কেউ এসে এখানে অবস্থিত এমন কর্নার দেখে বিস্মিত হন। কেউ কেউ নিজেকে ফ্রেমবন্দি করে নেন কর্নারে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটির সাথে। জাতির পিতাকে ভালবেসে এই কর্নারটি তৈরি করেছেন অগ্রণী ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম। প্রতিদিন কীভাবে বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানানো যায় সেই ভাবনা থেকেই বঙ্গবন্ধু কর্নারের ধারণা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সাত বছর আমি দেশের বাইরে ব্যাংকিং করেছি। ক্যারিয়ারের ১৬ বছর চট্টগ্রামে কাটিয়েছি। ২০০৯ সালের ১ জানুয়ারি আমি জিএম পদোন্নতি পেয়ে প্রধান কার্যালয়ে আসি। সে সময় আমাকে হেড অব  আইডি করা হয়। একই সঙ্গে সিলেট অঞ্চলের অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়। জিএম পদটি দেশের বিদ্যমান পরিস্থিতিতে একটি সম্মানজনক পদ হিসেবেই স্বীকৃত। সিলেট যাওয়ার পর আমার মনে হলো, দেশ স্বাধীন না হলে আমি জিএম হতে পারতাম না। হয়তো হাবিব ব্যাংকের এসপিও পর্যন্ত যেতে পারতাম। যার জন্য দেশটি স্বাধীন হলো, আমি জিএম হতে পারলাম, সেই বঙ্গবন্ধুর সম্মানে কিছু করার ইচ্ছে হলো। আর এ প্রেক্ষিতেই ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’এর ধারনা মাথায় আসে।’

 

অগ্রণী ব্যাংকের বর্তমান অবস্থা সমন্ধে তিনি বলেন, ‘অগ্রণী ব্যাংক সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এ বছর আমাদের স্লোগান হলো, ‘অগ্রযাত্রায় অগ্রণী’। আমরা লক্ষ্য বাস্তবায়নে এগিয়ে যাচ্ছি। তবে  অগ্রণী ব্যাংকের জন্য বেশকিছু চ্যালেঞ্জও আছে। এর মধ্যে অন্যতম হলো ঋণের সুদহার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনা। ঋণের সুদ ৯ শতাংশে নামিয়ে আনলে অগ্রণী ব্যাংক প্রায় ৩০০ কোটি টাকা মুনাফা বঞ্চিত হবে। এরপরও আমরা চ্যালেঞ্জ জয়ে সামনে এগোচ্ছি। আমরা বিনিয়োগ বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করছি। গুণগত মানসম্পন্ন বিনিয়োগের মাধ্যমে আমরা ব্যাংকের পরিধি বাড়াতে চাই। এমন ঋণ দিতে চাই না, যে ঋণ বিতরণ করা হলে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হবে। অগ্রণী ব্যাংক এখন গ্রামের শাখাগুলোর মাধ্যমে ঋণ বিতরণ করছে। ’

 

‘এখণ আর আগের মতো অবস্থা নেই, অগ্রণী ব্যাংকে শতভাগ পরিশুদ্ধতা এসেছে। বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন, অগ্রণী ব্যাংক অগ্রে থাকবে। আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাস্তবায়ন দেখতে চাই। ’ বলেন মোহাম্মদ সামস্-উল ইসলাম।

২৯-০৮-২০১৮ ১২:১৮ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে


পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

আজকের কণ্ঠঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

অন্যান্য খবরসমুহ
: আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে আজকের কণ্ঠঃ
আজকের কণ্ঠঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

ভিজিটর সংখ্যা
100
৩১ অক্টোবর, ২০২০ ০৭:৩৪ অপরাহ্ন