5:13 am, Tuesday, 23 July 2024

তেঁতুলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

সাইদুজ্জামান রেজা,পঞ্চগড়।
পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও তেতুলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহামুদুর রহমান ডাবলুর যাবতীয় স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) দুপুরে বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এ আদেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়,আসামী কাজী মাহামুদুর রহমান,২৯ অক্টোবরে ২০২০ সালে দুদক দিনাজপুর অফিসে  তার দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ১৩ লাখ ৩৬ হাজার ৫২ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন এবং ৭৯ লাখ ৭২ হাজার ৫৫৫ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও ভোগ দখলে রেখেছেন। অনুসন্ধানে প্রতীয়মান হওয়ায় দূর্নীতি দমন কমিশন ঠাকুরগাঁও এর সহকারী পরিচালক মো.আজমির শরিফ মারজী বাদী হয়ে ২০২৪ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি মামলা দায়ের করেন।
তদন্তকালে আসামী কাজী মাহামুদুর রহমান তার নামে স্বার্থ সংশ্লিষ্ট স্থাবর অস্বাবর সম্পদ, বিক্রি করে বিদেশ পালানোর চেষ্টা করছেন।পরে আসামী ও তার স্ত্রী তহুরা বেগম,এর নামে অর্জিত সম্পদ ক্রোক বা অবরুদ্ধ করার জন্য বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ এ ঠাকুরগাঁও দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচলক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা ৯ জুন আবেদন করেন।
অভিযুক্ত তেঁতুলিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু জানান, আমার বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত চলছে এটা আমি জানি, তবে আজকের আদালতের আদেশ সম্পর্কে জানা নেই।
পাবলিক প্রসিকিউটর দুদক সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত পঞ্চগড়,
আইনজীবি হাবিবুল ইসলাম হাবীব বিষযটি নিশ্চিত করে তিনি বলেন,দুদক আইনে ওই চেয়ারম্যানসহ তার স্ত্রীর যাবতীয় স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধ করার আদেশ দিয়েছেন।
ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 10:30:48 pm, Thursday, 27 June 2024
52 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

তেঁতুলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

আপডেট সময় : 10:30:48 pm, Thursday, 27 June 2024
পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও তেতুলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহামুদুর রহমান ডাবলুর যাবতীয় স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) দুপুরে বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এ আদেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়,আসামী কাজী মাহামুদুর রহমান,২৯ অক্টোবরে ২০২০ সালে দুদক দিনাজপুর অফিসে  তার দাখিলকৃত সম্পদ বিবরণীতে ১৩ লাখ ৩৬ হাজার ৫২ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন এবং ৭৯ লাখ ৭২ হাজার ৫৫৫ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও ভোগ দখলে রেখেছেন। অনুসন্ধানে প্রতীয়মান হওয়ায় দূর্নীতি দমন কমিশন ঠাকুরগাঁও এর সহকারী পরিচালক মো.আজমির শরিফ মারজী বাদী হয়ে ২০২৪ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি মামলা দায়ের করেন।
তদন্তকালে আসামী কাজী মাহামুদুর রহমান তার নামে স্বার্থ সংশ্লিষ্ট স্থাবর অস্বাবর সম্পদ, বিক্রি করে বিদেশ পালানোর চেষ্টা করছেন।পরে আসামী ও তার স্ত্রী তহুরা বেগম,এর নামে অর্জিত সম্পদ ক্রোক বা অবরুদ্ধ করার জন্য বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ এ ঠাকুরগাঁও দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচলক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা ৯ জুন আবেদন করেন।
অভিযুক্ত তেঁতুলিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু জানান, আমার বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত চলছে এটা আমি জানি, তবে আজকের আদালতের আদেশ সম্পর্কে জানা নেই।
পাবলিক প্রসিকিউটর দুদক সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত পঞ্চগড়,
আইনজীবি হাবিবুল ইসলাম হাবীব বিষযটি নিশ্চিত করে তিনি বলেন,দুদক আইনে ওই চেয়ারম্যানসহ তার স্ত্রীর যাবতীয় স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধ করার আদেশ দিয়েছেন।