8:04 am, Monday, 20 May 2024

নির্বাচনী মাঠে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে মমতাজ আলী শান্ত

নির্বাচনী মাঠে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী শান্ত

লালমনির হাট, প্রতিনিধি।

কালীগঞ্জ আদিতমারী-১৬টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত লালমনিরহাট-২ আসন। দীর্ঘদিন জাতীয় পার্টির (জাপা) ‘রাজত্ব’ ছিল এই আসনে। এখান থেকে প্রথমে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য হওয়া মজিবুর রহমান পরে যোগ দেন জাপায়। জাপার টিকিটেই ২০০৮ সাল পর্যন্ত টানা এমপি নির্বাচিত হন তিনি (১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন ছাড়া)। তবে জাপা সেই জৌলুশ হারিয়েছে। বড় দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে কমবেশি অভ্যন্তরীণ কোন্দল স্পষ্ট। নেতৃত্ব নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব অনেকটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে। দলীয় কর্মকাণ্ড দেখা না গেলেও ভেতরে-ভেতরে জামায়াতে ইসলামীও সুসংগঠিত হচ্ছে।

ক্ষমতাসীন দলের ত্যাগী নেতাকর্মীর মূল্যায়ন না থাকায়, লাঞ্ছনা বনছোনায় মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে অনেকেই, আর এই সুযোগেই, দেখা দিয়েছে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নতুন মুখ, কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের চাপারতলা এলাকার এক সম্ভ্রান্ত কৃষক আলহাজ্ব আইয়ুব আলীর ছেলে নতুন ও আলোচিত মুখ স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী (শান্ত)। তিনি বর্তমান সময়ের একজন জনবান্ধব প্রার্থী।

কাকিনা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান এই মানুষটি। তিনি ছাত্রজীবন থেকে সমাজসেবক, পরোপকারী ও মিষ্টিভাষী ব্যক্তিত্ব। তার কথা গুনে মাধুর্য দেখে মানুষ পাগলের মতো তার কাছে বিপদে আপদে ছুটে যায়। তিনি কখনও অন্যায়ের সাথে আপেষ করেন না। বর্তমানে এলাকায় তিনি মানবিক গুণাবলি সম্পন্ন একজন বহুল আলোচিত ব্যক্তিত্ব। তিনি ছাত্রজীবন হইতে অদ্যাবধি ব্যক্তিগত ও পারিবারিক উদ্যোগে বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন
নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছেন।

কালীগঞ্জ ও আদিতমারী উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, কালীগঞ্জ – আদিতমারী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কয়েকটি সেমিপাকা মসজিদ নির্মাণ, মাদ্রাসা ও এতিমখানার জন্য পাকা ঘর নির্মাণ, বিভিন্ন রাস্তাঘাটের সংস্কারমূলক কাজ, অসহায় ও প্রতিবন্ধি মানুষের জন্য টিনশেটের গৃহ নির্মাণ, ১০০ এর অধিক আর্সেনিক মুক্ত নলকূপ স্থাপন, যাতায়াতের জন্য সাকো নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মন্দির, শ্মশান সহ এলাকার গরিব, অসহায় ও অসুস্থ মানুষকে ব্যাক্তিগত ও পারিবারিক উদ্যোগে সাধ্যমত সাহায্য সহযোগীতা করেছেন। তাছাড়া দেশের যেকোন বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে আমার এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থেকে সামর্থ্য অনুযায়ী সবধরনের সহায়তা করার চেষ্টা করেছেন। এছাড়াও তিনি নিজ প্রচেষ্টায় জন্মস্থান কাকিনা ইউনিয়নকে স্মার্ট ও মডেল করার কার্যক্রম চলমান রেখেছেন। বর্তমানে কাকিনা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে একটি এতিমাখানা ও মাদ্রাসায় ৬০ফিট দৈর্ঘ্য ‘‘আলহাজ্ব আইয়ুব আলী ভবন’’ এর নির্মাণ কাজ চলমান। এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থেকে সামর্থ্য অনুযায়ী সবধরনের সহায়তা করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি।

এই পরোপকারী মানুষটি মোঃ মমতাজ আলী শান্ত লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের কাকিনা চাপারতলা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত কৃষক পরিবারে ১৯৮৬ সালে ১১ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেছি। তার পিতা আলহাজ্ব মোঃ আইয়ুব আলী একজন আদর্শ কৃষক এবং আমার মাতা মোছাঃ মোমেনা খাতুন একজন আদর্শ গৃহিনী। তার দাদা মরহুম নুরউদ্দিন ছিলেন একজন নিবেদিত সৎ, সমাজসেবক ও দানশীল ব্যাক্তি ছিলেন । দাদা মরহুম নুরউদ্দিন বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় মুক্তিযুদ্ধের স্ব-পক্ষে নিজ এলাকায় বিশেষ ভূমিকা পালন করেন এবং যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। এছাড়াও তার দাদার পিতা মরহুম কলবে হোসেন সরদার তৎকালীন কাকিনার রাজবাড়ীর রাজা-রাণীর বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমে একজন বিশ্বস্ত সহযোদ্ধা ও সমাজ সেবক ব্যাক্তি ছিলেন। এই সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী মানুষটি কাকিনা মহিমারঞ্জন স্মৃতি দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় হইতে ২০০২ সালে এসএসসি ও উত্তর বাংলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হইতে ২০০৪ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সহিত উত্তীর্ণ হই এবং কৃতিত্বের সহিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে ২০১১ সালে বিবিএস (অনার্স)-ফার্স্ট ক্লাস ও ২০১৩ সালে এমবিএস (মাস্টার্স)-ফার্স্ট ক্লাস অর্জন করেছেন। বর্তমানে তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এল.এল.বি-তে অধ্যয়নরত আছেন।

তিনি চাকুরী ও নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গুডলাক ইন্টারন্যাশন্যাল এর সত্ত্বাধিকারী। তিনি রাজনৈতিক কোন দলের সাথে সম্পৃক্ত নাই, তবে তিনি মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসী। তিনি ব্যবসায়ীক কাজে বিভিন্ন আন্তজার্তিক সংস্থা, প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের আমন্ত্রণে
ট্রেনিং, সভা ও সম্মেলনে বিভিন্ন দেশে অংশগ্রহন করিয়াছিলেন । বৈদেশিক ভ্রমণের দেশসমুহ হল- ভারত, নেপাল, ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, চীন, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, আবুধাবী, তুরস্ক ও বেলারুশ ভ্রমণ করেছেন। তিনি কোন রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত নাই। এছাড়াও অতীতে তার বিরুদ্ধে কোন রাজনৈতিক বা ফোজদারী মামলা নাই।

বর্তমানে কালীগঞ্জ ও আদিতমারীতে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যত সম্ভাব্য প্রার্থী আছেন সবার উপরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মমতাজ আলী শান্ত ।

এলাকার সাধারণ ভোটাররা জানান, এবারে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন যদি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় তাহলে মমতাজ আলী শান্ত বেশি ভোটে পেয়ে নিবার্চিত হবেন বলে আশাবাদী। বর্তমানে কালীগঞ্জ ও আদিতমারীর আনাচে-কানাচে, চায়ের স্টলে, হাট-বাজারে সম্ভাব্য স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী শান্তর নাম বেশি শোনা যাচ্ছে।

দৈনিক আজকের কন্ঠ কে মমতাজ আলী শান্ত বলেন, সম্মান দানের মালিক সৃষ্টিকর্তা। আমি নিঃস্বার্থভাবে সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আমৃত্য কাজ করে যেতে চাই । আগামীতে দেশ ও আমার এলাকা কালীগঞ্জ- আদিতমারীর অবহেলিত মানুষের জন্য সেবা করাই হোক আমার জীবনের ব্রত। আমিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 12:37:12 pm, Thursday, 20 July 2023
214 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

নির্বাচনী মাঠে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে মমতাজ আলী শান্ত

নির্বাচনী মাঠে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী শান্ত

আপডেট সময় : 12:37:12 pm, Thursday, 20 July 2023

কালীগঞ্জ আদিতমারী-১৬টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত লালমনিরহাট-২ আসন। দীর্ঘদিন জাতীয় পার্টির (জাপা) ‘রাজত্ব’ ছিল এই আসনে। এখান থেকে প্রথমে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য হওয়া মজিবুর রহমান পরে যোগ দেন জাপায়। জাপার টিকিটেই ২০০৮ সাল পর্যন্ত টানা এমপি নির্বাচিত হন তিনি (১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির নির্বাচন ছাড়া)। তবে জাপা সেই জৌলুশ হারিয়েছে। বড় দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে কমবেশি অভ্যন্তরীণ কোন্দল স্পষ্ট। নেতৃত্ব নিয়ে পারিবারিক দ্বন্দ্ব অনেকটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে। দলীয় কর্মকাণ্ড দেখা না গেলেও ভেতরে-ভেতরে জামায়াতে ইসলামীও সুসংগঠিত হচ্ছে।

ক্ষমতাসীন দলের ত্যাগী নেতাকর্মীর মূল্যায়ন না থাকায়, লাঞ্ছনা বনছোনায় মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে অনেকেই, আর এই সুযোগেই, দেখা দিয়েছে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নতুন মুখ, কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের চাপারতলা এলাকার এক সম্ভ্রান্ত কৃষক আলহাজ্ব আইয়ুব আলীর ছেলে নতুন ও আলোচিত মুখ স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী (শান্ত)। তিনি বর্তমান সময়ের একজন জনবান্ধব প্রার্থী।

কাকিনা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান এই মানুষটি। তিনি ছাত্রজীবন থেকে সমাজসেবক, পরোপকারী ও মিষ্টিভাষী ব্যক্তিত্ব। তার কথা গুনে মাধুর্য দেখে মানুষ পাগলের মতো তার কাছে বিপদে আপদে ছুটে যায়। তিনি কখনও অন্যায়ের সাথে আপেষ করেন না। বর্তমানে এলাকায় তিনি মানবিক গুণাবলি সম্পন্ন একজন বহুল আলোচিত ব্যক্তিত্ব। তিনি ছাত্রজীবন হইতে অদ্যাবধি ব্যক্তিগত ও পারিবারিক উদ্যোগে বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন
নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছেন।

কালীগঞ্জ ও আদিতমারী উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, কালীগঞ্জ – আদিতমারী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কয়েকটি সেমিপাকা মসজিদ নির্মাণ, মাদ্রাসা ও এতিমখানার জন্য পাকা ঘর নির্মাণ, বিভিন্ন রাস্তাঘাটের সংস্কারমূলক কাজ, অসহায় ও প্রতিবন্ধি মানুষের জন্য টিনশেটের গৃহ নির্মাণ, ১০০ এর অধিক আর্সেনিক মুক্ত নলকূপ স্থাপন, যাতায়াতের জন্য সাকো নির্মাণ করেছেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মন্দির, শ্মশান সহ এলাকার গরিব, অসহায় ও অসুস্থ মানুষকে ব্যাক্তিগত ও পারিবারিক উদ্যোগে সাধ্যমত সাহায্য সহযোগীতা করেছেন। তাছাড়া দেশের যেকোন বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে আমার এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থেকে সামর্থ্য অনুযায়ী সবধরনের সহায়তা করার চেষ্টা করেছেন। এছাড়াও তিনি নিজ প্রচেষ্টায় জন্মস্থান কাকিনা ইউনিয়নকে স্মার্ট ও মডেল করার কার্যক্রম চলমান রেখেছেন। বর্তমানে কাকিনা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে একটি এতিমাখানা ও মাদ্রাসায় ৬০ফিট দৈর্ঘ্য ‘‘আলহাজ্ব আইয়ুব আলী ভবন’’ এর নির্মাণ কাজ চলমান। এলাকার অসহায় মানুষের পাশে থেকে সামর্থ্য অনুযায়ী সবধরনের সহায়তা করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি।

এই পরোপকারী মানুষটি মোঃ মমতাজ আলী শান্ত লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের কাকিনা চাপারতলা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত কৃষক পরিবারে ১৯৮৬ সালে ১১ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেছি। তার পিতা আলহাজ্ব মোঃ আইয়ুব আলী একজন আদর্শ কৃষক এবং আমার মাতা মোছাঃ মোমেনা খাতুন একজন আদর্শ গৃহিনী। তার দাদা মরহুম নুরউদ্দিন ছিলেন একজন নিবেদিত সৎ, সমাজসেবক ও দানশীল ব্যাক্তি ছিলেন । দাদা মরহুম নুরউদ্দিন বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় মুক্তিযুদ্ধের স্ব-পক্ষে নিজ এলাকায় বিশেষ ভূমিকা পালন করেন এবং যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। এছাড়াও তার দাদার পিতা মরহুম কলবে হোসেন সরদার তৎকালীন কাকিনার রাজবাড়ীর রাজা-রাণীর বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমে একজন বিশ্বস্ত সহযোদ্ধা ও সমাজ সেবক ব্যাক্তি ছিলেন। এই সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী মানুষটি কাকিনা মহিমারঞ্জন স্মৃতি দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় হইতে ২০০২ সালে এসএসসি ও উত্তর বাংলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হইতে ২০০৪ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সহিত উত্তীর্ণ হই এবং কৃতিত্বের সহিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে ২০১১ সালে বিবিএস (অনার্স)-ফার্স্ট ক্লাস ও ২০১৩ সালে এমবিএস (মাস্টার্স)-ফার্স্ট ক্লাস অর্জন করেছেন। বর্তমানে তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এল.এল.বি-তে অধ্যয়নরত আছেন।

তিনি চাকুরী ও নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গুডলাক ইন্টারন্যাশন্যাল এর সত্ত্বাধিকারী। তিনি রাজনৈতিক কোন দলের সাথে সম্পৃক্ত নাই, তবে তিনি মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসী। তিনি ব্যবসায়ীক কাজে বিভিন্ন আন্তজার্তিক সংস্থা, প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের আমন্ত্রণে
ট্রেনিং, সভা ও সম্মেলনে বিভিন্ন দেশে অংশগ্রহন করিয়াছিলেন । বৈদেশিক ভ্রমণের দেশসমুহ হল- ভারত, নেপাল, ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, চীন, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, আবুধাবী, তুরস্ক ও বেলারুশ ভ্রমণ করেছেন। তিনি কোন রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত নাই। এছাড়াও অতীতে তার বিরুদ্ধে কোন রাজনৈতিক বা ফোজদারী মামলা নাই।

বর্তমানে কালীগঞ্জ ও আদিতমারীতে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যত সম্ভাব্য প্রার্থী আছেন সবার উপরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মমতাজ আলী শান্ত ।

এলাকার সাধারণ ভোটাররা জানান, এবারে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন যদি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হয় তাহলে মমতাজ আলী শান্ত বেশি ভোটে পেয়ে নিবার্চিত হবেন বলে আশাবাদী। বর্তমানে কালীগঞ্জ ও আদিতমারীর আনাচে-কানাচে, চায়ের স্টলে, হাট-বাজারে সম্ভাব্য স্বতন্ত্র প্রার্থী মমতাজ আলী শান্তর নাম বেশি শোনা যাচ্ছে।

দৈনিক আজকের কন্ঠ কে মমতাজ আলী শান্ত বলেন, সম্মান দানের মালিক সৃষ্টিকর্তা। আমি নিঃস্বার্থভাবে সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আমৃত্য কাজ করে যেতে চাই । আগামীতে দেশ ও আমার এলাকা কালীগঞ্জ- আদিতমারীর অবহেলিত মানুষের জন্য সেবা করাই হোক আমার জীবনের ব্রত। আমিন।