7:38 pm, Thursday, 30 May 2024

করিমগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

মোঃ জনি হোসেন, করিমগঞ্জ প্রতিনিধি।

মোঃ জনি হোসেন, করিমগঞ্জ (কিশোরগঞ্জ)  প্রতিনিধিঃ

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে করিমগঞ্জ উপজেলায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৬ আগস্ট) বিকাল ৫ ঘটিকার সময় করিমগঞ্জ উপজেলার ১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন জঙ্গল বাড়ি দেওয়ানগঞ্জ বাজার প্রাঙ্গনে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোখলেছ উদ্দিনের পরিচালনায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সম্মানিত সদস্য জনাব আমিরুল ইসলাম খান বাবলুর সার্বিক সহযোগিতায় কিশোরগঞ্জ জেলার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ সাধারণ সম্পাদক ও ১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ জামিল আনসারীর সভাপতিত্বে

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট মীর সাত্তার উদ্দিন কিশোরগঞ্জ জেলা জজ কোর্ট, বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,১নং কাঁদিরজঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আল-আমিন লিটন, আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ সহিদুল্লাহ মলাই মেম্বার, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আবু সিদ্দিক বাক্কার মেম্বার।

সভায় আলোচকের বক্তব্যে বক্তারা বলেন, আগস্ট মাস শোকের মাস,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এতিম হওয়ার মাস পশ্চিম পাকিস্তানিরা আমাদেরকে শাসনের নামে শোষণ করতো। তাদের শোষণের বিরুদ্ধে এ দেশের আপামর জন গণকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যিনি এদেশটাকে স্বাধীন করলেন বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এদেশেরই দোসরদের হাত থেকে আমরা বাঁচাতে পারলাম না।

ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো বসে নেই।যার প্রমাণ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা।তিনি আরো বলেন,এক মাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে এই দেশ উন্নয়নের সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছেছে তাই আওয়ামী লীগকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই।আওয়ামীলীগ কখনো পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসে নি।আওয়ামীলীগ গণতান্ত্রিক উপায়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় গিয়েছে।আবারো বাংলার মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় বসাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

আলোচনাসভা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। উক্ত সভায় উপ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের সহস্রাধিক নেতাকর্মী ও বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 02:47:28 pm, Wednesday, 16 August 2023
83 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

করিমগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

আপডেট সময় : 02:47:28 pm, Wednesday, 16 August 2023

মোঃ জনি হোসেন, করিমগঞ্জ (কিশোরগঞ্জ)  প্রতিনিধিঃ

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে করিমগঞ্জ উপজেলায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৬ আগস্ট) বিকাল ৫ ঘটিকার সময় করিমগঞ্জ উপজেলার ১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন জঙ্গল বাড়ি দেওয়ানগঞ্জ বাজার প্রাঙ্গনে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোখলেছ উদ্দিনের পরিচালনায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সম্মানিত সদস্য জনাব আমিরুল ইসলাম খান বাবলুর সার্বিক সহযোগিতায় কিশোরগঞ্জ জেলার বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ সাধারণ সম্পাদক ও ১নং কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মোঃ জামিল আনসারীর সভাপতিত্বে

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট মীর সাত্তার উদ্দিন কিশোরগঞ্জ জেলা জজ কোর্ট, বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,১নং কাঁদিরজঙ্গল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আল-আমিন লিটন, আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কাঁদির জঙ্গল ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ সহিদুল্লাহ মলাই মেম্বার, আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আবু সিদ্দিক বাক্কার মেম্বার।

সভায় আলোচকের বক্তব্যে বক্তারা বলেন, আগস্ট মাস শোকের মাস,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এতিম হওয়ার মাস পশ্চিম পাকিস্তানিরা আমাদেরকে শাসনের নামে শোষণ করতো। তাদের শোষণের বিরুদ্ধে এ দেশের আপামর জন গণকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যিনি এদেশটাকে স্বাধীন করলেন বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এদেশেরই দোসরদের হাত থেকে আমরা বাঁচাতে পারলাম না।

ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো বসে নেই।যার প্রমাণ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা।তিনি আরো বলেন,এক মাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলে এই দেশ উন্নয়নের সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছেছে তাই আওয়ামী লীগকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই।আওয়ামীলীগ কখনো পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসে নি।আওয়ামীলীগ গণতান্ত্রিক উপায়ে রাষ্ট্রক্ষমতায় গিয়েছে।আবারো বাংলার মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় বসাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

আলোচনাসভা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। উক্ত সভায় উপ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের সহস্রাধিক নেতাকর্মী ও বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।