8:59 am, Friday, 19 April 2024

দেবীগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহনের অভিযোগ 

সাইদুল জামান রেজা স্টাফ রিপোর্টার

 

সাইদুজ্জামান রেজা, স্টাফ রিপোর্টার পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহনের অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। রাব্বি হোসাইন শালডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।তিনি তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনের নামে এ ভাতা উত্তোলন করছেন।পঞ্চগড় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (অ:দা) এ কে এম ওয়াহিদুজ্জামান তদন্ত করে নাম কর্তনের আশ্বাস দেন।জানা যায়,২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে কৌশলে ইউপি সদস্য তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনের নামে মাতৃত্বকালীন ভাতা পাওয়ার জন্য আবেদন করেন।আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হলে জুলাই মাস থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসের ভাতা উত্তোলন করেন ইউপি সদস্য রাব্বি হোসাইন।স্থানীয়দের অভিযোগ,তাদের বিয়ের ৮ বছর হয়েছে কোন সন্তানাদি নাই। তার স্ত্রী রংপুরে পড়ালেখা করে। অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও কিভাবে মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছে ইউপি সদস্য। অথচ এ ভাতা পাওয়ার যোগ্য হলেও অনেকে পায়নি এসুবিধা।এদিকে আবেদনের পূর্বশর্ত ছিল। আবেদনের সময় অবশ্যই গর্ভধারিণী থাকতে হবে এবং আবেদনকারী ব্যক্তিকে অবশ্যই দরিদ্র হতে হবে।কিন্তু ইউপি সদস্য কোনটারেও যোগ্য নয়। তারপরও কিভাবে মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছে সমালোচনা এলাকায়।

হাবিবুর রহমান,লোকমানসহ একাধিক ব্যক্তি জানান,ইউপি সদস্যের সন্তানাদি নাই, বিয়ে অনেক আগে হয়েছে।রংপুরে পড়ালেখা করেন ইউপি সদস্যের স্ত্রী।এছাড়াও মেম্বারের নামে আরো অনেক অভিযোগ করেন তারা।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রাব্বি হোসাইন জানান,আমাদেরও চলতে হবে কি করব উপায় নাই।কোথাও থেকে কিছুতো পাই না।এটা দিয়ে তেল খরচ তো হবে।

 

 

 

 

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 08:54:12 am, Wednesday, 6 September 2023
83 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

দেবীগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহনের অভিযোগ 

আপডেট সময় : 08:54:12 am, Wednesday, 6 September 2023

 

সাইদুজ্জামান রেজা, স্টাফ রিপোর্টার পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও মাতৃত্বকালীন ভাতা গ্রহনের অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। রাব্বি হোসাইন শালডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।তিনি তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনের নামে এ ভাতা উত্তোলন করছেন।পঞ্চগড় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (অ:দা) এ কে এম ওয়াহিদুজ্জামান তদন্ত করে নাম কর্তনের আশ্বাস দেন।জানা যায়,২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে কৌশলে ইউপি সদস্য তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিনের নামে মাতৃত্বকালীন ভাতা পাওয়ার জন্য আবেদন করেন।আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হলে জুলাই মাস থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসের ভাতা উত্তোলন করেন ইউপি সদস্য রাব্বি হোসাইন।স্থানীয়দের অভিযোগ,তাদের বিয়ের ৮ বছর হয়েছে কোন সন্তানাদি নাই। তার স্ত্রী রংপুরে পড়ালেখা করে। অন্তঃসত্ত্বা না হয়েও কিভাবে মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছে ইউপি সদস্য। অথচ এ ভাতা পাওয়ার যোগ্য হলেও অনেকে পায়নি এসুবিধা।এদিকে আবেদনের পূর্বশর্ত ছিল। আবেদনের সময় অবশ্যই গর্ভধারিণী থাকতে হবে এবং আবেদনকারী ব্যক্তিকে অবশ্যই দরিদ্র হতে হবে।কিন্তু ইউপি সদস্য কোনটারেও যোগ্য নয়। তারপরও কিভাবে মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছে সমালোচনা এলাকায়।

হাবিবুর রহমান,লোকমানসহ একাধিক ব্যক্তি জানান,ইউপি সদস্যের সন্তানাদি নাই, বিয়ে অনেক আগে হয়েছে।রংপুরে পড়ালেখা করেন ইউপি সদস্যের স্ত্রী।এছাড়াও মেম্বারের নামে আরো অনেক অভিযোগ করেন তারা।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রাব্বি হোসাইন জানান,আমাদেরও চলতে হবে কি করব উপায় নাই।কোথাও থেকে কিছুতো পাই না।এটা দিয়ে তেল খরচ তো হবে।