2:24 pm, Friday, 21 June 2024

জামালপুর হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

 মোঃ শামীম হোসেন, জামালপুর প্রতিনিধি।
 ১০ ডিসেম্বর জামালপুর জেলা পাক হানাদার বাহিনী মুক্ত দিবস উদযাপন উলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ দুপুরে শহরের বকুলতলা মোড় থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি গিয়ে শেষ হয়। পরে শিল্পকলা একাডেমির বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম বাবু মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মোক্তার হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ শফিউর রহমান,পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান বিপিএম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমকন্ডার ও জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সুজাত আলী ফকির, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহনাজ ফেরদৌস সহ আরো অনেকে। উল্লেখ্য যে, ১৯৭১ সালের ৯ ডিসেম্বর জামালপুর শহরের পিটিআই হানাদার বাহিনী ঘাঁটির ওপর রাতভর গোলার আক্রমণ চালায় মুক্তিযোদ্ধারা এই আক্রমণে চার শতাধিক হানাদার নিহত এবং আহত হয় শতাধিক। পালিয়ে যায় আরও শতাধিক পাকিস্তানী সেনা। শত্রুমুক্ত হয় জামালপুর। উড়ানো হয় লাল-সবুজের পতাকা। এরপর থেকে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে প্রতি বছর ১০ ডিসেম্বর জামালপুর মুক্ত দিবস পালন করা হয়।
ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 05:24:35 pm, Sunday, 10 December 2023
53 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

জামালপুর হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

আপডেট সময় : 05:24:35 pm, Sunday, 10 December 2023
 ১০ ডিসেম্বর জামালপুর জেলা পাক হানাদার বাহিনী মুক্ত দিবস উদযাপন উলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ দুপুরে শহরের বকুলতলা মোড় থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি গিয়ে শেষ হয়। পরে শিল্পকলা একাডেমির বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম বাবু মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মোক্তার হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ শফিউর রহমান,পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান বিপিএম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমকন্ডার ও জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সুজাত আলী ফকির, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহনাজ ফেরদৌস সহ আরো অনেকে। উল্লেখ্য যে, ১৯৭১ সালের ৯ ডিসেম্বর জামালপুর শহরের পিটিআই হানাদার বাহিনী ঘাঁটির ওপর রাতভর গোলার আক্রমণ চালায় মুক্তিযোদ্ধারা এই আক্রমণে চার শতাধিক হানাদার নিহত এবং আহত হয় শতাধিক। পালিয়ে যায় আরও শতাধিক পাকিস্তানী সেনা। শত্রুমুক্ত হয় জামালপুর। উড়ানো হয় লাল-সবুজের পতাকা। এরপর থেকে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে প্রতি বছর ১০ ডিসেম্বর জামালপুর মুক্ত দিবস পালন করা হয়।