12:39 pm, Friday, 21 June 2024

মায়ের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা

রেজাউল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার।

রেজাউল ইসলাম,  স্টাফ রিপোর্টার।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে মায়ের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে হৃদয় (৯) নামে এক চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র।

৩০ ডিসেম্বর শনিবার রাতে শহরের নিচু কলোনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মায়ের সাথে অভিমান করে হৃদয় গলায় ওড়না পেচিয়ে নিজ ঘরের দরজার এ্যাঙ্গেলে ঝুলে আত্মহত্যা করে। সে ক্যান্টবোর্ড স্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়তো। এ বছর উত্তীর্ণ হয়ে ৫ম শ্রেণিতে উঠেছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

পাশের বাসার লোকজন জানান, ওই শিশুটিকে তার মা বকা দেয়। কী কারণে মা তার ছেলেকে বকা দিল তা জানি না। হয়তো বকা খেয়ে সে মনের ক্ষোভে ঘরের দরজার সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সকালে আমরা দেখতে পাই শিশুটির মরদেহ দরজার সাথে ঝুলে আছে।

এ বিষয়ে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। কী কারণে শিশুটি আত্মহত্যা করলো তা তদন্ত করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 10:57:42 pm, Sunday, 31 December 2023
95 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

মায়ের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা

আপডেট সময় : 10:57:42 pm, Sunday, 31 December 2023

রেজাউল ইসলাম,  স্টাফ রিপোর্টার।

নীলফামারীর সৈয়দপুরে মায়ের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে হৃদয় (৯) নামে এক চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র।

৩০ ডিসেম্বর শনিবার রাতে শহরের নিচু কলোনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মায়ের সাথে অভিমান করে হৃদয় গলায় ওড়না পেচিয়ে নিজ ঘরের দরজার এ্যাঙ্গেলে ঝুলে আত্মহত্যা করে। সে ক্যান্টবোর্ড স্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়তো। এ বছর উত্তীর্ণ হয়ে ৫ম শ্রেণিতে উঠেছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

পাশের বাসার লোকজন জানান, ওই শিশুটিকে তার মা বকা দেয়। কী কারণে মা তার ছেলেকে বকা দিল তা জানি না। হয়তো বকা খেয়ে সে মনের ক্ষোভে ঘরের দরজার সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সকালে আমরা দেখতে পাই শিশুটির মরদেহ দরজার সাথে ঝুলে আছে।

এ বিষয়ে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। কী কারণে শিশুটি আত্মহত্যা করলো তা তদন্ত করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।