5:29 am, Tuesday, 23 July 2024

বাগেরহাটে শেষ হয়েছে দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি

সোহেল রানা, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি।

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগেরহাটের চারটি আসনে ভোট গ্রহণের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। সকল উপজেলায় পৌছে গেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে নির্ধারিত সময়ে বাগেরহাটের ৪টি আসনে একযোগে ৭ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহন শুরু হবে। ভোট রক্ষায় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেখেছে নির্বাচন কমিশন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগেরহাটের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, জেলার ৯টি উপজেলা ও ৩টি পৌরসভায় ১২ লক্ষ ৮১ হাজার ১৩৪ জন ভোটার রয়েছে। ৪টি আসনে ৪৮৮টি কেন্দ্রে ২ হাজার ৭৯৬টি বুথে ভোটররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ভোট গ্রহণের জন্য ৯ হাজার ৭৬৪ জন প্রিজাইডিং ও পুলিং অফিসার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ১২ জন আনসার-ভিডিপি সদস্য এবং একজন করে গ্রাম পুলিশ দায়িত্ব দায়িত্ব পালন করবেন।

জেলায় ১ হাজার ৬৯৬ জন পুলিশ সদস্য, ৩০ জন আর্মড পুলিশ, ৭২ জন আনসার ব্যাটালিয়ন, ১৮০ জন বিজিবি, ৮২ জন র‌্যাব, এবং উপকূলীয় এলাকা হওয়ায় বাগেরহাট-৩ আসনে ৮০ জন নৌবাহিনী, নৌপুলিশের ৩৯ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। সকল আইনশৃঙ্খলার পাশাপাশি সেনা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করবেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষায়।

এছাড়া জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১৬ জন এবং ২২জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন এই নির্বাচনে। ভোট গ্রহনে কোন সমস্যা ও বিশৃঙ্খলা হলে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপারের দপ্তরে পৃথকভাবে দুটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. খালিদ হোসেন বলেন, ভোট গ্রহনের জন্য আমরা সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছি। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে যেসকল ব্যবস্থা নেওয়া দরকার তাও নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর প্রায় ৬শ সদস্য বাগেরহাটে অবস্থান করছেন। র‌্যাব, বিজিবি, আনসার, পুলিশ, নৌবাহিনী সবাই তাদের দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন। একই সাথে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে টহল প্রদান করছেন।

তিনি আরও বলেন, চারটি আসনে মোট ৪৮৮টি কেন্দ্র রয়েছে। ইতোমধ্যে নির্বাচনী সরঞ্জামাদি উপজেলায় পৌছে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র অনুযায়ী বিভাজন উপজেলা থেকে সম্পন্ন করেছে। ভোট গ্রহনের জন্য ১২৬টি কেন্দ্রে ৬ তারিখে এবং অবশিষ্ট সকল কেন্দ্রে ৭ তারিখ সকালে ব্যালট পেপার পৌছানো হবে। আশাকরি একটি সুষ্ঠ নির্বাচন আমরা সম্পন্ন করতে পারব।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 11:32:48 pm, Saturday, 6 January 2024
102 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

বাগেরহাটে শেষ হয়েছে দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি

আপডেট সময় : 11:32:48 pm, Saturday, 6 January 2024

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগেরহাটের চারটি আসনে ভোট গ্রহণের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। সকল উপজেলায় পৌছে গেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে নির্ধারিত সময়ে বাগেরহাটের ৪টি আসনে একযোগে ৭ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহন শুরু হবে। ভোট রক্ষায় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেখেছে নির্বাচন কমিশন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগেরহাটের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, জেলার ৯টি উপজেলা ও ৩টি পৌরসভায় ১২ লক্ষ ৮১ হাজার ১৩৪ জন ভোটার রয়েছে। ৪টি আসনে ৪৮৮টি কেন্দ্রে ২ হাজার ৭৯৬টি বুথে ভোটররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ভোট গ্রহণের জন্য ৯ হাজার ৭৬৪ জন প্রিজাইডিং ও পুলিং অফিসার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ১২ জন আনসার-ভিডিপি সদস্য এবং একজন করে গ্রাম পুলিশ দায়িত্ব দায়িত্ব পালন করবেন।

জেলায় ১ হাজার ৬৯৬ জন পুলিশ সদস্য, ৩০ জন আর্মড পুলিশ, ৭২ জন আনসার ব্যাটালিয়ন, ১৮০ জন বিজিবি, ৮২ জন র‌্যাব, এবং উপকূলীয় এলাকা হওয়ায় বাগেরহাট-৩ আসনে ৮০ জন নৌবাহিনী, নৌপুলিশের ৩৯ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। সকল আইনশৃঙ্খলার পাশাপাশি সেনা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করবেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষায়।

এছাড়া জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১৬ জন এবং ২২জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন এই নির্বাচনে। ভোট গ্রহনে কোন সমস্যা ও বিশৃঙ্খলা হলে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপারের দপ্তরে পৃথকভাবে দুটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. খালিদ হোসেন বলেন, ভোট গ্রহনের জন্য আমরা সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছি। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে যেসকল ব্যবস্থা নেওয়া দরকার তাও নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর প্রায় ৬শ সদস্য বাগেরহাটে অবস্থান করছেন। র‌্যাব, বিজিবি, আনসার, পুলিশ, নৌবাহিনী সবাই তাদের দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন। একই সাথে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে টহল প্রদান করছেন।

তিনি আরও বলেন, চারটি আসনে মোট ৪৮৮টি কেন্দ্র রয়েছে। ইতোমধ্যে নির্বাচনী সরঞ্জামাদি উপজেলায় পৌছে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র অনুযায়ী বিভাজন উপজেলা থেকে সম্পন্ন করেছে। ভোট গ্রহনের জন্য ১২৬টি কেন্দ্রে ৬ তারিখে এবং অবশিষ্ট সকল কেন্দ্রে ৭ তারিখ সকালে ব্যালট পেপার পৌছানো হবে। আশাকরি একটি সুষ্ঠ নির্বাচন আমরা সম্পন্ন করতে পারব।