8:43 am, Friday, 19 April 2024

পঞ্চগড়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্যের দ্বন্দ্ব, স্থানীয়দের ক্ষোভ

মোঃ রাশেদুল ইসলাম,পঞ্চগড়।।

পঞ্চগড়ে কৃষকের ফসলের ক্ষতিপূরণ দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্যের দ্বন্দ্ব। এতে উত্তেজিত হয়ে পরেছে এলাকাবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাষা ইউনিয়নে। এ ঘটনা জানাজানি হলে কয়েক শতাধিক মানুষ ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থান নেন। সাধারণ মানুষ উত্তেজিত হয়েছে বুঝতে পেরে প্রথমে আত্মগোপন করে ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম। স্থানীয়রা বলেন, গত শনিবার (২৩- মার্চ) সন্ধ্যার পর সীমান্তের খুব কাছ থেকে দশটি গরু উদ্ধার করে বিজিবি। গরুর মালিক না পেয়ে বিজিবি সদস্যরা গরুগুলো ক্যাম্পে নিয়ে যায়। পরে ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম যেখানে গরুগুলো পাওয়া গেছে সেখান থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার দুরে স্থানীয়দের গরু জানিয়ে বিজিবি’র কাছ থেকে গরু নেয়। গরুগুলো যেখানে পাওয়া গেছে সেখানে স্থানীয় এক ব্যক্তির ফসলের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে মর্মে সে ক্ষতিপুরণ দ্বাবী করে। ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল মাত্র ১৫০০ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে চাইলে সেটা মানতে নারাজ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক। এ বিষয়ে কথা বলায় ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ ইব্রাহিমের উপর ক্ষিপ্ত হয় ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল। এতে ঘটনাস্থলেই সাধারণ মানুষ উত্তেজিত হয় সফিকুলের উপর। পরে সেখান থেকে ইব্রাহিম ভাই পরিষদে আসলে পুনরায় মুঠোফোনে সফিকুল ইব্রাহিমকে হুমকি দেয় এবং পরক্ষণেই হাড়িভাষা বাজারে জন সম্মুখে পুনরায় তর্কে জড়ায়। প্রত্যক্ষদর্শী সংরিক্ষত মহিলা আসনে ইউপি সদস্য মোছাঃ আজিমা খাতুন বলেন, আগে কি হয়েছে জানিনা। তবে ইউপি সদস্য সফিকুল যখন ইউপি সদস্য ইব্রাহিমকে মুঠোফোনে হুমকি দেয় তখন আমি ইব্রাহিম ভাইয়ের সাথে ছিলাম। পরে ইব্রাহিম ও আমি বাজারে দাড়িয়ে ছিলাম এমন সময় সফিকুল মেম্বার এসে ইব্রাহিম ভাইয়ের উপর চড়াও হয় এবং তর্কে জড়ায়। স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম মাদক সেবন, মাদক ব্যবসা, চোরাচালান সহ নানা ধরনের অপকর্মের সাথে সম্পৃক্ত। তার এই অপকর্মের কারনে এলাকায় বসবাস করা কঠিন হয়ে গেছে। আমরা শোনা মাত্রই এখানে এসেছি । আমরা চেয়ারম্যান এর কাছে বিচার চেয়েছি। দুই থেকে তিন শতাধিক মানুষ বিচারের দাবিতে এখানে আছি। কিন্তু সে বিচারে আসতে টালবাহানা করছে। এবং সে বিভিন্ন ভাবে অনেককেই হুমকি দিচ্ছে এখন। তার সঠিক বিচার চাই। এ ঘটনায় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি জানান, এ ঘটনায় সফিকুল ইসলাম এর উপর সবাই ক্ষেপে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়া শুরু করলে চেয়ারম্যান এর মধ্যস্থতায় ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম আমাদের ইউপি সদস্য মোঃ ইব্রাহিম এর হাত ধরে ক্ষমা চায়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ইব্রাহিম তাকে ক্ষমা করে দেন। তবে ইউপি সদস্য সফিকুল ইসলামের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান স্থানীয় সাধারণ মানুষ।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 10:54:06 pm, Wednesday, 27 March 2024
47 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

পঞ্চগড়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্যের দ্বন্দ্ব, স্থানীয়দের ক্ষোভ

আপডেট সময় : 10:54:06 pm, Wednesday, 27 March 2024

পঞ্চগড়ে কৃষকের ফসলের ক্ষতিপূরণ দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্যের দ্বন্দ্ব। এতে উত্তেজিত হয়ে পরেছে এলাকাবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাষা ইউনিয়নে। এ ঘটনা জানাজানি হলে কয়েক শতাধিক মানুষ ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থান নেন। সাধারণ মানুষ উত্তেজিত হয়েছে বুঝতে পেরে প্রথমে আত্মগোপন করে ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম। স্থানীয়রা বলেন, গত শনিবার (২৩- মার্চ) সন্ধ্যার পর সীমান্তের খুব কাছ থেকে দশটি গরু উদ্ধার করে বিজিবি। গরুর মালিক না পেয়ে বিজিবি সদস্যরা গরুগুলো ক্যাম্পে নিয়ে যায়। পরে ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম যেখানে গরুগুলো পাওয়া গেছে সেখান থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার দুরে স্থানীয়দের গরু জানিয়ে বিজিবি’র কাছ থেকে গরু নেয়। গরুগুলো যেখানে পাওয়া গেছে সেখানে স্থানীয় এক ব্যক্তির ফসলের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে মর্মে সে ক্ষতিপুরণ দ্বাবী করে। ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল মাত্র ১৫০০ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে চাইলে সেটা মানতে নারাজ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক। এ বিষয়ে কথা বলায় ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ ইব্রাহিমের উপর ক্ষিপ্ত হয় ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল। এতে ঘটনাস্থলেই সাধারণ মানুষ উত্তেজিত হয় সফিকুলের উপর। পরে সেখান থেকে ইব্রাহিম ভাই পরিষদে আসলে পুনরায় মুঠোফোনে সফিকুল ইব্রাহিমকে হুমকি দেয় এবং পরক্ষণেই হাড়িভাষা বাজারে জন সম্মুখে পুনরায় তর্কে জড়ায়। প্রত্যক্ষদর্শী সংরিক্ষত মহিলা আসনে ইউপি সদস্য মোছাঃ আজিমা খাতুন বলেন, আগে কি হয়েছে জানিনা। তবে ইউপি সদস্য সফিকুল যখন ইউপি সদস্য ইব্রাহিমকে মুঠোফোনে হুমকি দেয় তখন আমি ইব্রাহিম ভাইয়ের সাথে ছিলাম। পরে ইব্রাহিম ও আমি বাজারে দাড়িয়ে ছিলাম এমন সময় সফিকুল মেম্বার এসে ইব্রাহিম ভাইয়ের উপর চড়াও হয় এবং তর্কে জড়ায়। স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম মাদক সেবন, মাদক ব্যবসা, চোরাচালান সহ নানা ধরনের অপকর্মের সাথে সম্পৃক্ত। তার এই অপকর্মের কারনে এলাকায় বসবাস করা কঠিন হয়ে গেছে। আমরা শোনা মাত্রই এখানে এসেছি । আমরা চেয়ারম্যান এর কাছে বিচার চেয়েছি। দুই থেকে তিন শতাধিক মানুষ বিচারের দাবিতে এখানে আছি। কিন্তু সে বিচারে আসতে টালবাহানা করছে। এবং সে বিভিন্ন ভাবে অনেককেই হুমকি দিচ্ছে এখন। তার সঠিক বিচার চাই। এ ঘটনায় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি জানান, এ ঘটনায় সফিকুল ইসলাম এর উপর সবাই ক্ষেপে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়া শুরু করলে চেয়ারম্যান এর মধ্যস্থতায় ইউপি সদস্য মোঃ সফিকুল ইসলাম আমাদের ইউপি সদস্য মোঃ ইব্রাহিম এর হাত ধরে ক্ষমা চায়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ইব্রাহিম তাকে ক্ষমা করে দেন। তবে ইউপি সদস্য সফিকুল ইসলামের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড বন্ধে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান স্থানীয় সাধারণ মানুষ।