9:21 am, Friday, 19 April 2024

পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতালের বর্জ্য খোলা স্থানে

প্রতিনিধির নাম

মোঃ রাশেদুল ইসলাম, পঞ্চগড়।।

বিষাক্ত মেডিক্যাল বর্জ্য খোলা আকাশের নিচে হাসপাতাল চত্বরে ফেলে রেখেছে পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এতে ভয়াবহ পরিবেশ বিপর্যয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের রোগ ছড়ানোর যথেষ্ট সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, হাসপাতালের উত্তর অংশে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ওয়াল ঘেঁষে খোলা স্থানে বিষাক্ত মেডিক্যাল বর্জ্য ফেলা হয়েছে। এবং হাসপাতালের তৃতীয় তলার উত্তর অংশের বারান্দায় ডাস্টবিনের পরিবর্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে রক্ত মাখা মেডিক্যাল বর্জ্য। স্থানীয়রা জানান, পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতালের উত্তরে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, পূর্বে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, দক্ষিণে সার্কিট হাউস এর মধ্যে পঞ্চগড়- বাংলাবান্ধা মহাসড়ক এতকিছুর পরেও খোলা স্থানে এসব মেডিক্যাল বর্জ্য পদার্থ ফেলেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আইনকে বুড়ো আঙুল দেখাচ্ছেন তারা। হাসপাতাল পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, আলহাজ্ব এ. এন. এম. মোখলেছুর রহমান মিন্টু বলে, আমরা আইন মেনেই কার্যক্রম পরিচালনা করছি। পরে আবর্জনার স্তুপ সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন, এগুলো খুব দ্রুতই অপসারণ করা হবে। তবে স্থানীয়রা বলেন, এক বা দুদিন নয় বছরের পর বছর ধরে এভাবেই আবর্জনা ফেলে আসছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আইনে এই হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী সকলের। এ বিষয়ে সিভিল সার্জন পঞ্চগড়, ডাঃ মোস্তফা জামান চৌধুরী বলেন, মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য আলাদা কমিটি কাজ করে। আমি বিষয়টি সেখানে উপস্থাপন করবো।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 10:56:34 pm, Wednesday, 27 March 2024
66 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতালের বর্জ্য খোলা স্থানে

আপডেট সময় : 10:56:34 pm, Wednesday, 27 March 2024

মোঃ রাশেদুল ইসলাম, পঞ্চগড়।।

বিষাক্ত মেডিক্যাল বর্জ্য খোলা আকাশের নিচে হাসপাতাল চত্বরে ফেলে রেখেছে পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এতে ভয়াবহ পরিবেশ বিপর্যয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের রোগ ছড়ানোর যথেষ্ট সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, হাসপাতালের উত্তর অংশে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ওয়াল ঘেঁষে খোলা স্থানে বিষাক্ত মেডিক্যাল বর্জ্য ফেলা হয়েছে। এবং হাসপাতালের তৃতীয় তলার উত্তর অংশের বারান্দায় ডাস্টবিনের পরিবর্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে রক্ত মাখা মেডিক্যাল বর্জ্য। স্থানীয়রা জানান, পঞ্চগড় ডায়াবেটিক সমিতি ও মকবুলার রহমান জেনারেল হাসপাতালের উত্তরে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, পূর্বে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, দক্ষিণে সার্কিট হাউস এর মধ্যে পঞ্চগড়- বাংলাবান্ধা মহাসড়ক এতকিছুর পরেও খোলা স্থানে এসব মেডিক্যাল বর্জ্য পদার্থ ফেলেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আইনকে বুড়ো আঙুল দেখাচ্ছেন তারা। হাসপাতাল পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, আলহাজ্ব এ. এন. এম. মোখলেছুর রহমান মিন্টু বলে, আমরা আইন মেনেই কার্যক্রম পরিচালনা করছি। পরে আবর্জনার স্তুপ সম্পর্কে জানতে চাইলে বলেন, এগুলো খুব দ্রুতই অপসারণ করা হবে। তবে স্থানীয়রা বলেন, এক বা দুদিন নয় বছরের পর বছর ধরে এভাবেই আবর্জনা ফেলে আসছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আইনে এই হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী সকলের। এ বিষয়ে সিভিল সার্জন পঞ্চগড়, ডাঃ মোস্তফা জামান চৌধুরী বলেন, মেডিক্যাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য আলাদা কমিটি কাজ করে। আমি বিষয়টি সেখানে উপস্থাপন করবো।