8:00 pm, Thursday, 30 May 2024

তীব্র তাপপ্রবাহে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে কমেছে যাত্রী ও যানবাহন 

প্রতিনিধির নাম

সুমন শেখ, রাজবাড়ী প্রতিনিধি।।

টানা কয়েকদিন ধরে  তীব্র তাপদাহের প্রভাবে  রাজবাড়ী দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার কমেছে কয়েকগুন। যাত্রী ও চালকরা বলছেন, খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে বের হচ্ছে না তারা। ফলে প্রভাব পড়েছে ফেরীঘাটে। নেই আগের মত যাত্রী ও যানবাহন। এতে করে অনেকটা কমেছে সরকারী রাজস্ব আদায়। আজ সকালে দৌলতদিয়ার লঞ্চ ও প্রতিটি ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন পারাপারের দেখা মিলেছে এমন চিত্র।

এবিষয়ে বিআইডব্লিউটিসি’র আরিচা জোন এর ডিজিএম খালেদ নেওয়া জানান,ফেরীর ট্রাফিকে ছোট-বড় মিলিয়ে মোট ১৭টি ফেরী স্বচল থাকলেও,তীব্র তাপদাহের কারণে ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন চলাচল নেই বলেই চলে। সেইসাথে প্রচন্ড গরমে ফেরীর ইঞ্জিনে আগুন লাগার সম্ভাবনা বেড়েছে বহুগুন। তাই ফেরীগুলো খুবই সাবধানতা অবলম্বন করে ইঞ্জিন ঠান্ডা রেখে চলাচল করছে। তবে তাপদাহের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে যাত্রী ও যানবাহন বাড়বে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপডেট সময় : 01:56:23 pm, Saturday, 27 April 2024
22 বার পড়া হয়েছে
error: Content is protected !!

তীব্র তাপপ্রবাহে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে কমেছে যাত্রী ও যানবাহন 

আপডেট সময় : 01:56:23 pm, Saturday, 27 April 2024

সুমন শেখ, রাজবাড়ী প্রতিনিধি।।

টানা কয়েকদিন ধরে  তীব্র তাপদাহের প্রভাবে  রাজবাড়ী দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার কমেছে কয়েকগুন। যাত্রী ও চালকরা বলছেন, খুব বেশি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে বের হচ্ছে না তারা। ফলে প্রভাব পড়েছে ফেরীঘাটে। নেই আগের মত যাত্রী ও যানবাহন। এতে করে অনেকটা কমেছে সরকারী রাজস্ব আদায়। আজ সকালে দৌলতদিয়ার লঞ্চ ও প্রতিটি ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন পারাপারের দেখা মিলেছে এমন চিত্র।

এবিষয়ে বিআইডব্লিউটিসি’র আরিচা জোন এর ডিজিএম খালেদ নেওয়া জানান,ফেরীর ট্রাফিকে ছোট-বড় মিলিয়ে মোট ১৭টি ফেরী স্বচল থাকলেও,তীব্র তাপদাহের কারণে ফেরীঘাটে যাত্রী ও যানবাহন চলাচল নেই বলেই চলে। সেইসাথে প্রচন্ড গরমে ফেরীর ইঞ্জিনে আগুন লাগার সম্ভাবনা বেড়েছে বহুগুন। তাই ফেরীগুলো খুবই সাবধানতা অবলম্বন করে ইঞ্জিন ঠান্ডা রেখে চলাচল করছে। তবে তাপদাহের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে যাত্রী ও যানবাহন বাড়বে বলে জানান এই কর্মকর্তা।